1. abkiller40@gmail.com : admin : Abir Ahmed
  2. ferozahmeed10@gmail.com : moderator1818 :
ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলএ নেতাকে বেদড়ক পেটালেন পৌর কাউন্সিলর - Barta24TV.com
রাত ২:৪৫, রবিবার, ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলএ নেতাকে বেদড়ক পেটালেন পৌর কাউন্সিলর

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, জুলাই ১১, ২০২২
  • 228 Time View

মোঃ সাইফুল ইসলাম ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি; ঠাকুরগাঁও রাণীশংকৈল উপজেলা নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আল-আমিনকে বেদড়ক পেটালেন রাণীশংকৈল পৌরসভার দুই নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জুয়েল আলী। ঘটনাটি শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পৌর শহরের বন্দর চৌরাস্তায় ঘটেছে। গুরতর আহত অবস্থায় ওই শ্রমিককে স্থানীয়রা উদ্ধার করে রাণীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন। সে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। আহত শ্রমিক নেতার বাড়ী পৌরসভার চার নম্বর ওয়ার্ডের ভান্ডারা গ্রামে। ঘটনাটি নিয়ে বর্তমানে পৌরশহর জুড়ে থমথম অবস্থা বিরাজ করছে। যে কোন সময় পাল্টা সংঘাত সৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা।

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, শ্রমিক নেতা আল-আমিন মোটরসাইকেল যোগে বন্দর চৌরাস্তা দিয়ে গীতাঞ্জলি গার্মেন্টসের দিকে যাচ্ছিলেন। অপরদিকে বন্দর চৌরাস্তার গাড়ীর জ্যামে দুই নম্বর ওযার্ডের কাউন্সিলর জুয়েল আলী দাড়িয়েছিলেন। এমতাবস্থায় কাউন্সিলর জুয়েল আল-আমিনকে গাড়ীটি চৌরাস্তা থেকে সরিয়ে নিতে বলেন। তবে আল-আমিন এর কারণ জানতে চান এ নিয়ে দুজনের মধ্যে খুব কথা কাটাকাটির এক পযায়ে হাতাহাতির মধ্যেই শ্রমিক নেতা আল-আমিন মোটরসাইকেল নিয়ে মাটিতে পড়ে যায়। এ সময় কাউন্সিলর জুয়েল শ্রমিক নেতাকে চর থাপ্পড় ও পা দিয়ে এলোপাথারি বেদড়ক মারপিট করেন। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল কর্মকর্তা চিকিৎসক ফিরোজ আলম বলেন, আপাতত শ্রমিক নেতা আল-আমিনকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করে বুঝা যাবে গুরতর কোন সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে কি না।

উপজেলা নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আল-আমিন বলেন, আমি এমনিতেই লিভার রোগে ভুগছি বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছি। শনিবার সন্ধায় আমি চৌরাস্তা দিয়ে বন্দর গীতাঞ্জলি গার্মেন্টসের দিকে রওনা দিয়েছিলাম। এ সময় কাউন্সিলর জুয়েল আমার মোটরসাইকেলটি আটকিয়ে অন্যদিকে ঘুরে যেতে বলেন এ সময় আমি মোটরসাইকেল ঘুরানোর চেষ্টা করলে আচমকা কাউন্সিলর আমাকে চড় থাপ্পর মারা শুরু করে। এক পযার্য়ে মোটরসাইকেল নিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে। কাউন্সিলর আমাকে পা দিয়ে এলোপাথারী লাথি দেওয়া শুরু করে। এক প্রশ্নের জবাবে আলআমিন বলেন, আমি অব্যশই এর সু-বিচার চাই।

কাউন্সিলর জুয়েল আলী বলেন, চৌরাস্তায় অনেক জ্যাম ছিলো এ সময় আমি কিছু সময় চৌরাস্তায় দাড়িয়ে জ্যাম ছাড়ানোর কাজটি করছিলাম। এ সময় শ্রমিক নেতা আল-আমিন ওদিক দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যাচ্ছিল। এসময় তাকে ঘুরে যেতে বললে সে আমার উপর উত্তেজিত হয়ে শার্টের কলার ধরেন। এ সময় তাকে আমি দু চারটি থাপ্পড় মেরেছি।

পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। আমি বাইরে ছিলাম ঘটনার বিস্তারিত বলতে পারছি না।

থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) এস এম জাহিদ ইকবাল বলেন, কাউন্সিলর ও শ্রমিক নেতার মধ্যে একটি ঘটনা ঘটেছে শুনেছি। এ ঘটনায় থানায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ দেয়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category